Home তথ্য প্রযুক্তি সিংড়ায় শুরু হয়েছে ১২দিন ব্যাপী চলনবিল শিক্ষা উৎসব

সিংড়ায় শুরু হয়েছে ১২দিন ব্যাপী চলনবিল শিক্ষা উৎসব

17
0
চলনবিল শিক্ষা উৎসব

নিজস্ব প্রতিবেদক:
পিছিয়ে পড়া চলনবিলের শিক্ষা ব্যবস্থাকে এগিয়ে নিতে নাটোরের সিংড়ায় শুরু হয়েছে ১২দিন ব্যাপী চলনবিল শিক্ষা উৎসব।

শুক্রবার দুপুরে স্থানীয় দমদমা পাইলট স্কুল ও কলেজে ১২দিনের এই উৎসবের উদ্বোধন করেন তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি।

এবারের উৎসবে ইংরেজী ও গণিত ভীতি দুর করতে রাখা হয়েছে বিশেষ ক্যাম্প। এছাড়া চলনবিলের কৃতি, মেধাবী শিক্ষার্থীদের সংবর্ধনার পাশাপাশি থাকছে প্রযুক্তিগত জ্ঞণ চর্চার সুযোগ। শিক্ষা উৎসব কে ঘিরে চলনবিল শিক্ষার্থীদের মাঝে বইছে আনন্দের জোয়ার।

পিছিয়ে পড়া চলনবিলের শিক্ষা ব্যবস্থাকে এগিয়ে নিতে প্রতি বছরের মতো এবারও আয়োজন করা হয়েছে চলনবিল শিক্ষা উৎসব। ১২দিনের এই শিক্ষা উৎসবে অংশ নিচ্ছেন চলনবিল অঞ্চলের ৩৪০টি স্কুলের ৮৫হাজার শিক্ষার্থীরা।

ইংরেজী ও গণিত ভীতি দুর করতে এবারের চলনবিলের শিক্ষা উৎসবে নেওয়া হয়েছে বিশেষ ক্যাম্প। উৎসবের প্রথম দিনে অনুষ্ঠিত হয় ইংলিশ ক্যাম্প। এই ক্যাম্পে চলনবিলের অন্তত ৭৮টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের আড়াই হাজারের অধিক শিক্ষাথীরা অংশগ্রহন করেন।

ইংলিশ ক্যাম্পটি পরিচালনা করেন টেন মিনিটিস স্কুলের সিইও আয়মান সাদিক, শিক্ষক মুনজেরিন শহীদ সহ অন্যান্যেরা। এছাড়া শনিবার গণিত ক্যাম্প, কোডিং, প্রোগ্রামিংয়ে অংশ নিবেন শিক্ষার্থীরা।

সিংড়া উপজেলা সহকারী শিক্ষা অফিসার আবরুস মতিন বলেন, এই ধরনের শিক্ষা উৎসব শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অনুপ্রানিত করছে। এই বছর থেকেই সরকার নতুন শিক্ষাক্রম চালু করেছেন। নতুন শিক্ষাক্রমে মজার ছলে যে শিক্ষাদান এই উৎসব থেকেই রপ্ত করতে পারছে শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। তাছাড়া ইংরেজী ও গণিত ভীতি শিক্ষার্থীদের মনে চেপে বসলেও চলনবিল শিক্ষা উৎসবের মাধ্যমে শিক্ষার্থীদের পাশাপাশি শিক্ষকরাও সমৃদ্ধ হচ্ছে।

চলনবিল অঞ্চলের শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের অনেক সুপ্ত প্রতিভা থাকলেও তা সুযোগের অভাবে বিকশিত করতে পারছে না শিক্ষক ও শিক্ষার্থীরা। তাদের সেই সুপ্ত প্রতিভা বিকশিত করতেই এই ধরনের আয়োজন বলে জানান চলনবিল শিক্ষা উৎসবের উদ্যেক্তা ও আইসিটি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক।

করোনার কারনে গত তিন বছর বন্ধ ছিল চলনবিল শিক্ষা উৎসব। এবার সে কারনে আয়োজনের আরও পরিধি বাড়িয়েছে উৎসব কমিটি। এবারের উৎসবে সংযুক্ত করা হয়েছে প্রোগ্রামিং প্রতিযোগিতা, শিক্ষকদের আইসিটি বিষয়ক কর্মশালা, কৃতি শিক্ষার্থী সংবর্ধনা, সিংড়া রত্ন সম্মাননা, রত্নাগর্ভা মা সম্মাননা, কর্ম জীবনে সফল যারা, কেমন তারা, ওয়ান স্টুডেন্ট, ওয়ান ল্যাপটপ সহ মোট ২০টি ক্যাটাগরি। আগামী ৩১ জানুয়ারী শেষ হবে এই উৎসব।

Previous articleনাটোরে ভেজাল গুড় তৈরী করায় ৬জন ব্যবসায়ীকে ২লাখ ৬৪হাজার টাকা জরিমানা
Next articleলালপুরে ইজারার বাহিরে প্রতিদিন লাখ টাকার বালু উত্তোলনের অভিযোগ

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here