Home তথ্য প্রযুক্তি ২০২৫সাল নাগাদ আইসিটি খাতে ৩০লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মস্থান-আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

২০২৫সাল নাগাদ আইসিটি খাতে ৩০লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মস্থান-আইসিটি প্রতিমন্ত্রী

89
0
আইসিটি মিনিস্টার পলক

নিজস্ব প্রতিবেদক:
তথ্য ও যোগাযোগ প্রযুক্তি প্রতিমন্ত্রী জুনাইদ আহমেদ পলক এমপি বলেছেন, তথ্য প্রযুক্তিতে আগামী দিনে বাংলাদেশ নেতৃত্ব দিবে। আমরা ২০২৫সাল নাগাদ আইসিটি সেক্টরে অন্তত ৩০লাখ তরুণ-তরুণীর কর্মস্থান সৃষ্টি করতে পারবো। এছাড়া ৫ বিলিয়ন ডলার রপ্তানী আয় করতে হবে। বর্তমানে ১৩কোটি মানুষ ইন্টারনেট ব্যবহার করছে আর ২হাজার ১০০টি ডিজিটাল সেবার আওতায় এসেছে। এই তারুণ্য এবং প্রযুক্তির শক্তি কাজে লাগিয়ে ২০৪১সাল নাগাদ একটি জ্ঞানভিত্তিক স্মার্ট বাংলাদেশ গড়ে তুলতে চাই।

রবিবার দুপুরে নাটোরের সিংড়া উপজেলা, পৌর ও কলেজ ছাত্রলীগের সম্মেলনে প্রধান অতিথির বক্তৃতায় আইসিটি প্রতিমন্ত্রী এসব কথা বলেন।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, প্রতিটি ছাত্রলীগের নেতা কর্মীকে জ্ঞান ভিত্তিক রাজনীতিক চর্চা করতে হবে। অস্ত্র দিয়ে নয়, অর্থ দিয়ে নয়, ভালবাসা দিয়ে প্রত্যেকটি ছাত্র-ছাত্রীর মনজয় করে বঙ্গবন্ধুর আর্দশ বাস্তবায়ন করতে হবে।

উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি খালিদ হাসানের সভাপতিত্বে সম্মেলনের উদ্বোধন করেন, বাংলাদেশ ছাত্রলীগের সভাপতি আল নাহিয়ান খান জয়। এছাড়া প্রধান বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক লেখক ভট্টাচার্য।

এছাড়া বিশেষ বক্তা হিসেবে বক্তব্য রাখেন, নাটোর জেলা ছাত্রলীগের সভাপতি ফরহাদ বিন আজিজ, সাধারণ সম্পাদক শরিফুল ইসলাম শাহিন।

বিশেষ অতিথি হিসেবে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা আওয়ামীলীগের সভাপতি এডভোকেট ওহিদুর রহমান শেখ, সিংড়া পৌর সভার মেয়র ও উপজেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক জান্নাতুল ফেরদৌস, পৌর আওয়ামী লীগের সভাপতি ও উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান শফিকুল ইসলাম শফিক।

সবশেষ ২০১৭সালে সিংড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়। দীর্ঘ ৫বছর পর সিংড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সম্মেলন অনুষ্ঠিত হল। সম্মেলনের দ্বিতীয় অধিবেশনে সিংড়া উপজেলা ছাত্রলীগের সভাপতি হিসেবে সজিব ইসলাম জুয়েল এবং হারুন বাশারকে সাধারণ সম্পাদক ও শিমুল পারভেজকে সাংগঠনিক সম্পাদক করা হয়।

এছাড়া পৌর ছাত্রলীগে ফয়সাল ইসলাম ফারুককে সভাপতি, আবু সাইদ সাজুকে সাধারণ সম্পাদক ও সাব্বির মন্ডলকে সাংগঠনিক সম্পাদক এবং দীপ্ত জ্যোতি ঘোষকে সভাপতি, সোহেল রানা মিতুলকে সাধারণ সম্পাদক করে গোল-ই আফরোজ সরকারি কলেজ ছাত্রলীগের কমিটি ঘোষণা করা হয়। এছাড়া মাসুম আলীকে ভিপি, রেখা খাতুনকে প্রো-ভিপি, উম্মে আমারা ইসলাম সুখিকে জিএস ও নাইম ইসলামকে এজিএস ঘোষণা করে ছাত্রলীগের প্যানেল ঘোষণা করা হয়।

 

Previous articleইভটিজিংয়ের প্রতিবাদ করায় সংবাদকর্মীর ওপর হামলা
Next articleনাটোরে মাদক নিরাময় কেন্দ্রে ভর্তির পর কলেজ ছাত্র যুবকের মৃত্যু

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here